শনিবার ২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নিউইয়র্কে ঈদের কেনাকাটায় ধুম, পছন্দের শীর্ষে নায়রা, আগানো আর সাজনী

যুক্তরাষ্ট্র প্রতিনিধি   |   রবিবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৩ | প্রিন্ট  

নিউইয়র্কে ঈদের কেনাকাটায় ধুম, পছন্দের শীর্ষে নায়রা, আগানো আর সাজনী

ঈদের কেনাকাটায় ধূম পড়েছে নিউইয়র্ক অঞ্চলে। বাংলাদেশী অধ্যুষিত জ্যাকসন হাইটস, জ্যামাইকা, ওজোনপার্ক, চার্চ-ম্যাকডোনাল্ড, পার্কচেস্টার এলাকার প্রতিটি দোকানেই ক্রেতার অবিশ্বাস্য রকমের ভীড় পরিলক্ষিত হচ্ছে। ক্রেতা-সাধারণের সামর্থ্যরে প্রতি যত্মবান হয়ে প্রায় সকলেই পোশাক-আশাকের দাম কমিয়েছেন।

এ প্রসঙ্গে জ্যাকসন হাইটস বাংলাদেশি বিজনেস এসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট মাহাবুবুর রহমান টুকু শনিবার বাংলাদেশ প্রতিদিনকে জানালেন, করোনা মহামারি থেকে জেগে উঠার পরিক্রমায় ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধজনিত কারণে দ্রব্যমূল্য আকাশচুম্বি হয়েছে। অপরদিকে, অনেক প্রবাসীর কর্মঘন্টা কমানো হয়েছে অর্থাৎ সাপ্তাহিক আয়ের পরিধি টেনে ধরা হয়েছে। টুকু বললেন, গত দু’বছর থেকে বাড়ি ভাড়াও বেড়েছে। চাল, ডাল, তেল, শাক-সব্জি থেকে মাছ, মাংশ সবকিছুর দাম দ্বিগুণ। এতদসত্বেও পবিত্র রমজানের সংযমের শিক্ষায় আমার স্মৃতি ফ্যাশনে সতল পোশাকের মূল্য ৫৫% পর্যন্ত হ্রাস করেছি।

টুকু বলেন, সবচেয়ে বেশী বিক্রি হচ্ছে ভারতের নায়রা এবং পাকিস্তানের আগানো। এছাড়া ক্রেতা-সাধারণের পছন্দের শীর্ষে রয়েছে সাজনী, কাবলি, পাঞ্জাবি, কুটি।

বাংলাদেশ স্ট্রিট এবং ৩৭ এভিনিউর কর্ণারে স্মৃতি ফ্যাশনের ভিড় সকাল-সন্ধ্যা পরিলক্ষিত হচ্ছে। আশপাশের আরো কয়েকটি স্টোরে ঈদের পোশাকের পসরা সাজানো হয়েছে। শুধু পোশাক-আশাকই নয়, কসমেটিক্স, স্বর্ণালংকারও বিক্রি হচ্ছে দেদারসে। কেনাকাটার হিড়িক পড়াবস্থা দেখলে বিশ্বাসই হয় না যে ভেতরে ভেতরে সকলেই মন্দায় আক্রান্ত হয়েছে। এই যে উদ্যম, তা বিস্তৃত হচ্ছে রমজানের ত্যাগের মহিমায়। নিউইয়র্কের মত নিউজার্সি, পেনসিলভেনিয়া, ভার্জিনিয়া, ফ্লোরিডা, জর্জিয়া, মিশিগান, টেক্সাস, ক্যালিফোর্নিয়া থেকে আরিজোনা পর্যন্ত ঈদের ঢেউ ছড়িয়ে পড়েছে।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৩:১৪ অপরাহ্ণ | রবিবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৩

nypratidin.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  

Editor : Naem Nizam

Executive Editor : Lovlu Ansar