বুধবার ২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রুশ ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় কেঁপে উঠল কিয়েভ

বিশ্ব ডেস্ক   |   বৃহস্পতিবার, ১৮ মে ২০২৩ | প্রিন্ট  

রুশ ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় কেঁপে উঠল কিয়েভ

ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে বৃহস্পতিবার নতুন করে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে রাশিয়া। কিয়েভ ছাড়াও কৃষ্ণ সাগরীয় বন্দর নগরী ওডেসায়ও ক্ষেপণাস্ত্র ছুঁড়েছে রুশ বাহিনী। এতে অন্তত একজন নিহত হয়েছেন।

কিয়েভে ছোঁড়া ক্ষেপণাস্ত্রগুলো ঠেকিয়ে দেওয়ার দাবি করেছে ইউক্রেনের সেনাবাহিনী। তবে ধ্বংসপ্রাপ্ত ক্ষেপণাস্ত্রের ধ্বংসাবশেষ একটি বহুতল ভবনে আছড়ে পড়লে সেখানে আগুন লেগে যায়।

ইউক্রেনের সেনাবাহিনী জানিয়েছে, কিয়েভের দেসনিয়ানস্কিতে একাধিক বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে। আর দারনাৎস্কির পাশে ভূপাতিত করা একটি ক্ষেপণাস্ত্র বহুতল ভবনের ওপর আছড়ে পড়লে সেটিতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

এছাড়া মধ্যাঞ্চলের ভিনিৎসিয়ায় রুশ সেনারা ক্রুস ক্ষেপণাস্ত্র ছুঁড়েছে বলে জানিয়েছে ইউক্রেন । অপরদিকে ১০০ কিলোমিটার পূর্ব দিকের খমেলেতেস্কিতেও হামলা হয়েছে বলে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে।

কিয়েভের সামরিক প্রশাসনের প্রধান সেরহি পোপকো বৃহস্পতিবার ভোরে এক সতর্কবার্তায় সবাইকে নিরাপদ আশ্রয়ে থাকার আহ্বান জানান। পরবর্তীতে এ সামরিক কর্মকর্তা দাবি করেন, রাশিয়া যেসব ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে তার সবগুলোই ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবারের নতুন হামলার মাধ্যমে রাশিয়া শুধুমাত্র এ মাসে কিয়েভে নবমবারের মতো হামলা চালিয়েছে। যা ইঙ্গিত করছে, ইউক্রেনের রাজধানীকে লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করেছে তারা।

গত সোমবারও কিয়েভে আকাশ, নৌ ও স্থল থেকে ‘অভাবনীয়’ ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় রুশ বাহিনী। এর পরের দিন দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, কিয়েভে হাইপারসনিক কিনজাল ক্ষেপণাস্ত্র ছুঁড়ে যুক্তরাষ্ট্রের পাঠানো প্যাট্রিয়ট আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ধ্বংস করা হয়েছে। তবে তাদের এ দাবির সত্যতা নিশ্চিত করা যায়নি।

সূত্র: আল জাজিরা

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ২:২৬ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ১৮ মে ২০২৩

nypratidin.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর...

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  

Editor : Naem Nizam

Executive Editor : Lovlu Ansar