শুক্রবার ১৪ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অবশেষে জনি ডেপকে মিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ অ্যাম্বারের

বিনোদন ডেস্ক:   |   বৃহস্পতিবার, ০৮ জুন ২০২৩ | প্রিন্ট  

অবশেষে জনি ডেপকে মিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ অ্যাম্বারের

অবশেষে প্রাক্তন স্ত্রী অ্যাম্বার হার্ডের বিরুদ্ধে মানহানির মামলায় জয়ী হওয়ার পর ক্ষতিপূরণের ১ মিলিয়ন ডলার হাতে পেয়েছেন হলিউড তারকার জনি ডেপ। হার্ডের আইনজীবীদের দায়ের করা আদালতের নথি অনুসারে ‘অ্যাকোয়াম্যান’ তারকা তার বীমা কোম্পানির সহায়তায় ১ মিলিয়ন অর্থের বন্দোবস্ত করেছেন।

এর আগে, মামলায় অ্যাম্বার হার্ডকে ১ মিলিয়ন ক্ষতিপূরণের নির্দেশ দিয়েছিল আদালত। এক বছর পর সেই অর্থ হাতে পেলেন জনি।

হার্ড তার প্রাক্তন স্বামী ও ‘পাইরেটস অফ দ্য ক্যারিবিয়ান’ খ্যাত অভিনেতার বিরুদ্ধে মানহানির মামলা হেরেছে যখন জুরি জানতে পেরেছেন যে তিনি প্রকৃতপক্ষে গার্হস্থ্য নির্যাতনের অভিযোগ দিয়ে তারকার মানহানি করেছেন।ৎ
ছয় সপ্তাহের বিচার শেষ হওয়ার পর অ্যাম্বারকে মামলার নিষ্পত্তির জন্য ১৫ মিলিয়ন যার মধ্যে ১০ মিলিয়ন ক্ষতিপূরণমূলক ক্ষতি এবং ৫ মিলিয়ন শাস্তিমূলক ক্ষতিপূরণ দিতে বলা হয়েছিল।

তবে হার্ড ডেপকে ১ মিলিয়ন দিতে রাজি হওয়ায় রায় ঘোষণার পর একটি মীমাংসা হয় দুজনের কিন্তু হার্ডের বীমা কোম্পানি তার পক্ষ থেকে নিষ্পত্তির ফি দিতে অস্বীকার করে।

নিউইয়র্ক মেরিন এবং জেনারেল ইন্স্যুরেন্স কোং জানান যে তারা ফি প্রদান করবে না কারণ অভিনেত্রী তার স্বামীর বিরুদ্ধে মানহানি মামলা করে একটি ইচ্ছাকৃত এবং অপরাধমুলক আচরণ করেছেন।

এদিকে ডেপের সাবেক আইনজীবী ক্যামিল ভাসকেজও পিপল ম্যাগাজিনের সাথে একটি সাক্ষাৎকারে নিশ্চিত করেছেন যে হার্ড সেটেলমেন্ট ফি পরিশোধ করেছেন। তিনি জানান, আমি এটি খুব স্পষ্ট করতে চাই, মিসেস হার্ড মিস্টার ডেপকে অর্থ প্রদান করেছেন।

জনি এবং অ্যাম্বার ২০১৫ সালে তাদের লস অ্যাঞ্জেলেসের বাড়িতে একটি গোপন অনুষ্ঠানে বিয়ে করেছিলেন। ২০১৬ সালের মে মাসে অ্যাম্বার জনির কাছ থেকে বিবাহবিচ্ছেদের জন্য আবেদন করেন এবং তাঁর বিরুদ্ধে একটি অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার আদেশ পান।

তিনি বলেছিলেন যে জনি তাদের সম্পর্কের সময় তাকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেছিল। জনি এটি প্রায়ই করত, যখন নেশায় থাকত।
বহুল আলোচিত এই মানহানি মামলায় অ্যাম্বার হার্ডকে দোষী করে রায় দেন আদালত।

ফলে ডেপকে ১০.৪ মিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ প্রদানের নির্দেশ দেওয়া হয় অ্যাম্বার হার্ডকে। মামলায় পরাজিত হওয়ার পাশাপাশি বিশাল অঙ্কের অর্থের জরিমানা গুনতে হবে অ্যাম্বার হার্ডকে, যা এই মুহূর্তে অ্যাম্বারের জন্য খুব কঠিন ছিল।

তাই মামলাটির রায়ের জন্য পুনরায় আপিল করেছিলেন অ্যাম্বার। নভেম্বরের শেষের দিকে আপিল করে ৬৮ পৃষ্ঠার একটি নথি জমা দিয়েছিলেন অ্যাম্বার।

তবে আইনি লড়াই চালিয়ে যাওয়ার মতো পরিস্থিতি তারকার নেই, এমনটাই জানা গেছে। তাই অবশেষে মামলাটি নিষ্পত্তিতে পৌঁছানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন অ্যাম্বার। সূত্র : দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনাল।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১২:৪৭ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ০৮ জুন ২০২৩

nypratidin.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০  

Editor : Naem Nizam

Executive Editor : Lovlu Ansar