বৃহস্পতিবার ২০শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

স্বাধীনতা কীভাবে রক্ষা করতে হয় পাকিস্তান জানে: সেনাপ্রধান জেনারেল আসিম মুনির

বিশ্ব ডেস্ক   |   সোমবার, ১৪ আগস্ট ২০২৩ | প্রিন্ট  

স্বাধীনতা কীভাবে রক্ষা করতে হয় পাকিস্তান জানে: সেনাপ্রধান জেনারেল আসিম মুনির

কষ্টার্জিত স্বাধীনতা কীভাবে রক্ষা করতে হয় পাকিস্তান তা জানে বলে মন্তব্য করেছেন পাকিস্তানের সেনাপ্রধান (সিওএএস) জেনারেল আসিম মুনির। একইসঙ্গে এই অঞ্চলে ‘ভারতীয় কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে’ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের যথাযথ পদক্ষেপ না থাকারও নিন্দা জানিয়েছেন তিনি।

এসময় অধিকৃত কাশ্মিরের জনগণের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করেন পাকিস্তানের এই সেনাপ্রধান। সোমবার (১৪ আগস্ট) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম দ্য ডন।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সোমবার নিজেদের ৭৬ তম স্বাধীনতা দিবস উদযাপন করছে পাকিস্তান। ১৯৪৭ সালের এই দিনেই ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক শাসন থেকে মুক্ত হয়ে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছিল দক্ষিণ এশিয়ার এই দেশটি।

এদিন জেনারেল আসিম মুনির পাকিস্তানের প্রতিষ্ঠাতা বীরদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন এবং বলেন, কষ্টার্জিত স্বাধীনতা কিভাবে রক্ষা করতে তার দেশ তা জানে। ৭৬তম স্বাধীনতা বার্ষিকী উপলক্ষ্যে আজাদি প্যারেডে দেওয়া ভাষণে পাকিস্তানের এই সেনাপ্রধান বলেন, ‘স্বাধীনতা, সাম্য প্রতিষ্ঠার যে ঐতিহ্য বজায় রয়েছে, সেটি আমাদের অবশ্যই লালন করতে হবে।’

দ্য ডন বলছে, রোববার গভীর রাতে কাকুলে পাকিস্তান মিলিটারি একাডেমিতে আজাদি প্যারেড ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে দেশের বিপুল সম্পদ এবং যুবসমাজের উৎসাহের প্রশংসা করে তাদের বিশ্বাস, ঐক্য ও শৃঙ্খলায় অবিচল থাকার আহ্বান জানান জেনারেল মুনির।

ভূ-রাজনৈতিক কোন্দল থেকে শুরু করে অভ্যন্তরীণ হুমকি পর্যন্ত জাতির মুখোমুখি হওয়া অগণিত চ্যালেঞ্জের কথা স্বীকার করে পাকিস্তানের এই সেনাপ্রধান মোহাম্মদ আলী জিন্নাহের ভাষায় সবাইকে সতর্ক করে দেন। তিনি বলেন, ‘পৃথিবীতে এমন কোনও শক্তি নেই যা পাকিস্তানকে পূর্বাবস্থায় ফিরিয়ে নিতে পারে।’

সেনাবাহিনী যেকোনও মূল্যে পাকিস্তানের সার্বভৌমত্ব রক্ষা করতে প্রস্তুত বলেও এসময় হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন তিনি।

জেনারেল মুনির এসময় ভারতশাসিত কাশ্মিরের জনগণের সাথে সংহতি প্রকাশ করেন এবং এই অঞ্চলে ভারতীয় ক্রিয়াকলাপের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের যথাযথ পদক্ষেপের অভাবের নিন্দাও প্রকাশ করেন।

পাকিস্তানের সেনাপ্রধান বলেন, ‘আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের উপলব্ধি করা উচিত যে, কাশ্মিরে ভারত যে বাড়াবাড়ি করেছে সেটির সমাধান করা হয়নি এবং ভূ-রাজনৈতিক প্রয়োজনের কারণে (কাশ্মিরের মানুষের) স্বাধীনতা ও আত্মনিয়ন্ত্রণের অধিকারকে অস্বীকার করা হচ্ছে।’

তিনি খাইবার পাখতুনখাওয়া এবং বেলুচিস্তানের জনগণের প্রতিও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন, যারা দুই দশকেরও বেশি সময় ধরে সন্ত্রাসবাদ এবং প্রক্সি যোদ্ধাদের বিরুদ্ধে নমনীয়ভাবে লড়াই করে চলেছে।

ভারতকে সম্বোধন করে আসিম মুনির স্পষ্ট করে বলেন, কীভাবে নিজের স্বাধীনতা রক্ষা করতে হয় পাকিস্তান তা জানে এবং (প্রয়োজনে) আক্রমণাত্মক হতে ভীত হবে না তার দেশ। তিনি বলেন, ‘আমি অবশ্যই বলব, আমরা মহান সংগ্রামের পরে স্বাধীনতা অর্জন করেছি এবং আমরা এটিকে রক্ষা করতে জানি।’

এসময় আফগানিস্তানকে তার মাটি পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ব্যবহার না করার বিষয়টি নিশ্চিত করার আহ্বানও জানান পাকিস্তানের সেনাপ্রধান।

এছাড়া আঞ্চলিক সহযোগিতার গুরুত্ব তুলে ধরে চীন, সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, তুরস্ক, কাতার এবং ইরানের মতো দীর্ঘস্থায়ী মিত্রদের সঙ্গে সম্পর্ক আরও জোরদার করার কথা উল্লেখ করেন জেনারেল মুনির।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৩:২৬ অপরাহ্ণ | সোমবার, ১৪ আগস্ট ২০২৩

nypratidin.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০  

Editor : Naem Nizam

Executive Editor : Lovlu Ansar