শুক্রবার ২১শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইউএসবিসিসিআইয়ের ওয়ার্কশপ

ব্যবসা শুরুতেই ঋণ দিচ্ছে ‘অ্যাকোম্পানী ক্যাপিটল’

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   বুধবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২৪ | প্রিন্ট  

ব্যবসা শুরুতেই ঋণ দিচ্ছে ‘অ্যাকোম্পানী ক্যাপিটল’

‘অ্যাকোম্পানী ক্যাপিটল’র সহায়তায় ইউএসবিসিসিআইয়ের ওয়ার্কশপে কর্মকর্তাগণ। ছবি-বাংলাদেশ প্রতিদিন।

১৯৯৭ সালে প্রতিষ্ঠার পর গত বছর পর্যন্ত ৪ হাজার ৯০৯ ব্যবসায়ীকে ঋণ পেতে সর্বাত্মক সহায়তা দিয়েছে সংস্থাটি। এরমধ্যে খলিল বিরিয়ানির খুলিলুর রহমানসহ ৫৩ বাংলাদেশিও এই ঋণ পেয়েছেন ব্যবসা চালুর সময়েই। এ প্রসঙ্গে ‘বাইডেন বিরিয়ানি’র প্রবর্তন করে অভিবাসী সমাজে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জনকারি শেফ খলিলুর রহমান বলেন, নিজের রেস্টুরেন্ট চালুর সময় অ্যাকোম্পানী ক্যাপিটলের সহযোগিতা পেয়েছি, যা আমাকে অনেকটা সাহস জুগিয়েছে। নতুন ব্যবসা চালুর সময়ে এসবিএ লোন পাওয়া যায়-এ তথ্য আমরা অনেকে জানি না কিংবা জানার চেষ্টাও করি না। সেই ব্যবধান ঘুচাতে ইউএসবিসিসিআইয়ের আজকের এই ওয়ার্কশপের গুরুত্ব অপরিসীম। এজন্যে আমি ইউএসবিসিসিআইয়ের প্রেসিডেন্ট এবং সিইও লিটন আহমেদসহ সকলকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।
১৭ জানুয়ারি দুপুরে নিউইয়র্ক সিটির জ্যামাইকায় হিলসাইড এভিনিউতে অবস্থিত খলিল বিরিয়ানির কনফারেন্স রুমে ‘অ্যাকোম্পানী ক্যাপিটল’র সহায়তায় ইউএসবিসিসিআইয়ের ( The US Bangladesh Chamber of Commerce & Industry) উদ্যোগে ‘লাঞ্চ অ্যান্ড লার্ণ : স্ট্র্যাটেজিস ফর সিকিউরিং এসবিএ সেভেন এ অ্যান্ড মাইক্রোলোন্স’ (“(“Lunch & Learn: Strategies for Securing SBA 7a and Microloans ) শীর্ষক এক ওয়ার্কশপে আমেরিকান স্বপ্ন পূরণের অভিযাত্রায় উদ্যমী উদ্যোক্তারা অংশ নেন।
ওয়ার্কশপে লিটন আহমেদ এ সংবাদদাতাকে জানান, শীঘ্রই আমরা এ ধরনের ওয়ার্কশপ ব্রঙ্কস, ব্রুকলীনেও করবো। অনেক উদ্যমী প্রবাসী, বিশেষ করে শিক্ষিত নারীরা নিজে ব্যবসা চালুর কথা ভাবছেন, কিন্তু অ্যাকোম্পানী ক্যাপিটলের ব্যাপারে কোন ধারণা না থাকায় প্রচলিত ব্যাংকে গিয়ে নানা জটিলতায় পড়ছেন এবং হতাশ হয়ে অনেকে ব্যবসার কথা ভুলে যাচ্ছেন। লিটন আহমেদ জানান, ক্ষুদ্র ব্যবসা প্রশাসনের মাধ্যমে ফেডারেল সরকার সহজ শর্তে নতুন ব্যবসায়ীদের ঋণ দিচ্ছে। এজন্যে ক্রেডিট লাইন কিংবা অন্য কোন যোগ্যতার কঠিন শর্ত নেই। পরিকল্পিত ব্যবসার মোট মূলধনের ৩০% বিনিয়োগের শর্ত পূরণ করলেই সিবিএ লোন পেতে সহায়তা দিচ্ছি আমরাও।
ওয়ার্কশপে অ্যাকোম্পানী ক্যাপিটলের সিনিয়র ম্যানেজার (বিজনেস ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড ট্রেনিং) টিশেরিং ডি গুরুং বলেন, আমরা সর্বোচ্চ সাড়ে তিন লাখ ডলার পর্যন্ত ঋণের ব্যবস্থা করছি। ব্যবসা শুরুর সময়ে ক্ষুদ্র ঋণ প্রশাসনের এই ব্যবস্থা সম্পর্কে নতুন কম্যুনিটির অনেকে জানেন না। সে তাগিদেই আমরা ইউএসবিসিআইয়ের সহযোগিতা নিচ্ছি বাংলাদেশি ব্যবসায়ী-উদ্যোক্তাগণের পাশে দাঁড়ানোর জন্যে। টিশেরিং বলেন, এ যাবত আমরা ৬০ মিলিয়ন ডলারের অধিক ঋণ পাইয়ে দিয়েছি অভিবাসী সমাজের ব্যবসায়ীদেরকে। এই ঋণের ব্যাপারে বিস্তারিত জানা যাবে এই (https://accompanycapital.org/loan-inquiry/ )ওয়েবসাইট ভ্রমণ করলে। উদ্যোক্তাগণ আবেদন করতে পারবেন এই ( https://www.tfaforms.com/5017312) ওয়েবসাইটে গিয়ে। কোন ধরনের ব্যবসায় ঋণ পাওয়া যাচ্ছে তা জানতে এই (https://accompanycapital.org/programs-resources /) ওয়েবসাইট দেখতে হবে।
ব্যবসার পরিকল্পনা গ্রহণ এবং জায়গা ভাড়া নেয়ার সময়েই বিস্তারিত তথ্য (কত ভাড়া, কতজন কর্মচারি খাটবে, মাসে কত ব্যয় হবে, কাঁচামাল ক্রয় এবং উৎপাদন ব্যয় কত, দিন শেষে কত লাভবান হওয়ার সম্ভাবনা ইত্যাদি) উল্লেখ করে এই ঋণের আবেদন করা যাচ্ছে। ক্রেডিট লাইন তেমন কোন ফেক্টর নয়, যেহেতু নতুন ব্যবসায়ী। তবে ক্রেডিট স্কোর মন্দ না হলেই ভালো। পরিকল্পিত ব্যবসায় ৩০% বিনিয়োগের সামর্থ্য থাকতে হবে। অর্থাৎ লাখ ডলার ঋণের বিপরীতে ৩০ হাজার ডলারের মত নিজে ইনভেস্ট করতে হবে। আবেদনের ফি খুবই সামান্য, যা ওয়েবসাইটে উল্লেখ রয়েছে। ঋণের বিপরীতে স্বচ্ছ্বল কোন গ্যারান্টার থাকতেই হবে-এমন কঠিন শর্তও নেই এই প্রোগ্রামে। এসব তথ্য উপস্থাপন করেন অ্যাকোম্পানী ক্যাপিটলের সিনিয়র লোন অফিসার নীরাজ গুপ্ত। ইউএসসিসিআইয়ের ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট স্ট্যান্ডিং কমিটির কো-চেয়ার আহাদ আলী সিপিএ ক্ষুদ্র ব্যবসায় ঋণ পাবার প্রক্রিয়া সম্পর্কে আলোকপাত করেছেন।
সূচনা বক্তব্য রাখেন ইউএসসিসিআইয়ের পরিচালক বখত রুম্মন বিরতিজ এবং প্রশ্নোত্তর পর্বের সমন্বয় ঘটান অপর পরিচালক শেখ ফরহাদ। উদ্যমী ব্যবসায়ী ও কম্যুনিটি নেতৃবৃন্দের মধ্যে আরো ছিলেন ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার এবং ব্যাংকার কাজী হেলাল। হোস্ট সংগঠনের পরিচালনা পর্ষদের মেম্বার আহাদ বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনৈতিক অগ্রগতিতে ক্ষুদ্র ব্যবসা প্রতিষ্ঠানও বড় ধরনের ভূমিকায় অবতীর্ণ হতে পারবে যদি তারা সুপরামর্শ এবং সার্বিক সাপোর্ট পায়।
লিটন আহমেদ বলেন, উদ্যোক্তাগণকে ক্ষমতায়িত/সামর্থ্যবান করতে আমাদের এমন আয়োজন অব্যাহত থাকবে। এজন্যে কম্যুনিটির সকলের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করছি।
ছিমছাম এ আয়োজনে অংশগ্রহণকারি সকলের মধ্যে খলিল বিরিয়ানির সুস্বাদু খাবার পরিবেশন করা হয়।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১:১৭ অপরাহ্ণ | বুধবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২৪

nypratidin.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০  

Editor : Naem Nizam

Executive Editor : Lovlu Ansar