সোমবার ২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশি আমেরিকান হাসান আল আব্দুল্লাহ সম্পাদিত

৫৯ দেশের ২২৯ কবির ‘ওয়ার্ল্ড পোয়েট্রি এন্থোলজি’র প্রকাশনা উৎসব

বিশেষ সংবাদদাতা   |   শুক্রবার, ২২ মার্চ ২০২৪ | প্রিন্ট  

৫৯ দেশের ২২৯ কবির ‘ওয়ার্ল্ড পোয়েট্রি এন্থোলজি’র প্রকাশনা উৎসব

‘ওয়ার্ল্ড পোয়েট্রি এন্থোলজি’র প্রকাশনা উৎসবে কবি হাসান আল আব্দুল্লাহ সাথে অধ্যাপক ড. নিকোলাস বার্ন্স। ছবি-বাংলাদেশ প্রতিদিন।

কবি হাসানআল আব্দুল্লাহ সম্পাদিত ‘ওয়ার্ল্ড পোয়েট্রি এন্থোলজি’র প্রকাশনা উৎসব হলো ১৬ মার্চ নিউইয়র্ক সিটির গ্রীনিচ ভিলেজের কমিউনিটি হলে। আয়োজন করেছিলেন ডার্কলাইট পাবলিসিং হাউজের সত্ত্বাধিকারী কবি রবার্টো মেন্ডোজা আয়েলা। অনুষ্ঠানে অতিথি আলোচক হিসেবে যোগ দেন নিউইয়র্ক বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি সাহিত্যের অধ্যাপক ড. নিকোলাস বার্ন্স। তিনি বিশ্ব কবিতার এই নতুন সংকলনটির নানামুখি গুরুত্ব তুলে ধরে বলেন, “কিছু কবি আছেন যারা বিশ্বসাহিত্যের সংকলনে যুক্ত হবার যোগ্যতা রাখেন, কিন্তু বড় বড় প্রকাশকের প্রকাশনা জটিলতার কারণে তাদেরকে এইসব সংকলনে যুক্ত করা হয় না। হাসানআল আব্দুল্লাহ সম্পাদিত এই সংকলনটি সেই দিক থেকে সফল।”

তিনি বিশ্বের নানা অঞ্চলের কবিদের কবিতাও পড়ে শোনান। তিনি পড়েন আইরিস কবি গ্যাব্রিয়েল রজেনেস্টাক, বৃটিশ কবি এলেন গারফুট, পোলিশ কবি ক্যাথারজিনা জরজিউ, মার্কিন কবি রবার্ট ডান ও এলিসা অস্ট্রিকার, এবং বাংলাদেশি কবি শামসুর রাহমান ও হুমায়ুন আজাদের কবিতা। অধ্যাপক নিকোলাস বার্ন্স তাঁর আলোচনা শেষ করেন তাঁরই অনূদিত রবীন্দোত্তর বাংলা ভাষার প্রধান কবি জীবনানন্দ দাশের ‘বনলতা সেন’ পাঠের ভেতর দিয়ে। তিনি বলেন, “একজন গুরুত্বপূর্ণ কবি হয়েও অনুবাদের ভেতর দিয়ে হাসানআল আব্দুল্লাহ সারাবিশ্বে বাংলা কবিতাকে যেভাবে তুলে ধরছেন তার প্রশংসা না করলে ভুল হবে।” কবি ও বিশিষ্ট পদার্থ বিজ্ঞানী অধ্যাপক ড. সুলতান ক্যাটো ‘শব্দগুচ্ছ’ পত্রিকার সাথে তাঁর হৃদ্যতার কথা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, “আমি বিজ্ঞান চর্চা করি কিন্তু যারা আমাকে কবিতায় এনেছেন, তাদের মধ্যে হাসানআল আব্দুল্লাহ অন্যতম। আমি এখন পদার্থবিদ্যার সাথে সাথে কবিতা নিয়েও বিশ্ব ভ্রমণে অংশ নেই।” অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন মেক্সিকান কবি ও প্রকাশন রবার্টো মেন্ডোজা আয়েলা ও কবি-শিক্ষাবিদ নাজনীন সীমন। কবি ও সম্পাদক হাসানআল আব্দুল্লাহ সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে এই সংকলনের প্রেক্ষাপট তুলে ধরে বলেন, “প্রধান উদ্দেশ্য ‘শব্দগুচ্ছ’ পত্রিকার ২৫ বর্ষপূর্তি উদযাপন। তবে পৃথিবীর যে অংশের কবিই বইটি হাতে নেবেন তার জন্যে এই সংকলনে নিজেকে একিভূত করার সুযোগ রয়েছে।” তিনি আরো বলেন, “কবিতার মাধ্যমে বিশ্বভ্রাতৃত্ববোধ জাগ্রত করে যে শান্তির পথ খুঁজে পাওয়া যায়, এই সংকলনটি তারই নির্দেশক।” তিনি কবি ও লং আইল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ইমিরেটাস জোন ডিকবির লেখা ভূমিকা থেকে কিছু অংশ পড়ে শোনান এবং ক্যানসারে আক্রান্ত এই কবির রোগমুক্তি কামনা করেন। তিনি এই বই থেকে এডোনিস ও নিজের কবিতা পড়ে শোনান। উল্লেখ্য, এই সংকলনে ৫৯ দেশের ২২৯ জন কবি স্থান পেয়েছেন। সবগুলো কবিতাই গত পঁচিশ বছরে ‘শব্দগুচ্ছ’ পত্রিকায় ছাপা হয়েছে।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১১:৫৭ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, ২২ মার্চ ২০২৪

nypratidin.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর...

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  

Editor : Naem Nizam

Executive Editor : Lovlu Ansar