শনিবার ২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জলবায়ু পরিবর্তন নয়, অভিবাসন নিয়ে বেশি আতঙ্কিত জার্মানরা

প্রতিদিন ডেস্ক   |   শনিবার, ১১ মে ২০২৪ | প্রিন্ট  

জলবায়ু পরিবর্তন নয়, অভিবাসন নিয়ে বেশি আতঙ্কিত জার্মানরা

ইউরোপীয় বিশেষ করে জার্মানরা, জলবায়ু পরিবর্তনের চেয়ে অভিবাসন কমাতে বেশি আগ্রহী বলে ডেনমার্কের এক সংস্থার গবেষণায় জানা গেছে। গত বুধবার প্রকাশিত গবেষণাটি করেছে ‘অ্যালায়েন্স অব ডেমোক্র্যাসিস ফাউন্ডেশন’৷

প্রতি চারজন ইউরোপীয়র মধ্যে একজন মনে করেন, সরকারের শীর্ষ অগ্রাধিকারের তালিকায় ‘অভিবাসন কমানোর’ বিষয়টি থাকা উচিত। ২০২২ সালের আগে এমন মনে করা ইউরোপীয়র সংখ্যা ছিল প্রতি পাঁচজনে একজন।

জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করা মানুষের সংখ্যা কমছে বলে গবেষণায় জানা গেছে। গবেষণার ফলাফল বলছে, ‘২০২৪ সালে প্রথমবারের মতো বেশিরভাগ ইউরোপীয়র কাছে জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের চেয়ে অভিবাসন কমানো বেশি অগ্রাধিকার পেয়েছে।’

এই তালিকায় সবার ওপরে আছে জার্মানি। ২০২২ সালে প্রতি চারজন জার্মান নাগরিকের একজন (২৫ শতাংশ) বলেছিলেন- অভিবাসন কমানো তাদের মূল অগ্রাধিকার। ২০২৪ সালে হারটি ৪৪ শতাংশ হয়েছে। আর ২০২২ সালে প্রতি তিনজন জার্মানের একজন (৩৩ শতাংশ) জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে উদ্বিগ্ন ছিলেন। এখন সেই হার ২৫ শতাংশের নিচে নেমে গেছে।

৫৩টি দেশে গবেষণাটি পরিচালিত হয়। এরমধ্যে গণতান্ত্রিক দেশ ছাড়াও স্বৈরতন্ত্র আছে এমন দেশও আছে। এসব দেশে বিশ্বের মোট জনসংখ্যার ৭৫ শতাংশের বেশি মানুষ বাস করেন। গবেষণার মাধ্যমে গণতন্ত্র, সরকারের অগ্রাধিকার, আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ে জানার চেষ্টা করা হয়।

বিশ্বব্যাপী সবচেয়ে বড় হুমকি হিসেবে দেখা হচ্ছে যুদ্ধ ও সহিংসতাকে। এরপর আছে দারিদ্র, ক্ষুধা এবং তারপর জলবায়ু পরিবর্তন।

বিশ্বের প্রায় অর্ধেক মানুষ মনে করেন, তাদের সরকার অল্প কিছু মানুষের স্বার্থ রক্ষায় কাজ করছে। গণতান্ত্রিক, অগণতান্ত্রিক উভয় দেশের ক্ষেত্রেই একথা প্রযোজ্য।

গত চার বছরে এমন উপলব্ধি সবচেয়ে বেশি ছিল লাতিন আমেরিকায়, এশিয়ায় ছিল সবচেয়ে কম, আর ২০২০ সাল থেকে ইউরোপে এটা ক্রমে বেড়েছে- বিশেষ করে জার্মানিতে।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১০:৩৩ অপরাহ্ণ | শনিবার, ১১ মে ২০২৪

nypratidin.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০  

Editor : Naem Nizam

Executive Editor : Lovlu Ansar