রবিবার ১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মার্কিনিদের ওপর গোপনে নজরদারি : বাইডেন প্রশাসনের বিরুদ্ধে মামলা

লাবলু আনসার, যুক্তরাষ্ট্র   |   বুধবার, ২৪ আগস্ট ২০২২ | প্রিন্ট  

মার্কিনিদের ওপর গোপনে নজরদারি :  বাইডেন প্রশাসনের বিরুদ্ধে মামলা

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আমেরিকানদের ওপর নজরদারির ঘটনাকে সংবিধানের পরিপন্থি অভিহিত করে অভিবাসন দফতর, হোমল্যান্ড সিকিউরিটি মন্ত্রণালয় তথা বাইডেন প্রশাসনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে নিউইয়র্কভিত্তিক বামপন্থি থিঙ্কট্যাংক ‘ব্রেনন সেন্টার’। ২২ আগস্ট পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, অনলাইনে এ ধরনের গুপ্তচরবৃত্তির ঘটনাকে গণতান্ত্রিক সমাজের জন্যে বিপজ্জনক বলে অভিহিত করা হচ্ছে। ইতিপূর্বে এই ফেডারেল দফতরকে ‘ব্রেনন সেন্টার’ নোটিশ করেছিল গোপন নজরদারি কেন করা হচ্ছে এবং কতজনের ওপর পরিচালনা করা হয়েছে তা সুনির্দিষ্টভাবে জানানোর জন্যে। কোন জবাব না পাওয়ায় আদালতের আশ্রয় নেয়া হলো বলে উল্লেখ করেছে থিঙ্কট্যাংক।

মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে নাগরিকের বাক স্বাধীনতা, মুক্তচিন্তা এবং সংগঠিত হবার অধিকারকে খর্ব করার মত পরিস্থিতির অবতারণা করা হয়েছে। ঝুঁকির মধ্যে নিপতিত করা হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধান প্রদত্ত নাগরিক অধিকারকে।

থিঙ্কট্যাংকের ওয়েব সাইটে রাচেল লেভিনসন-ওয়াল্ডম্যান এবং হোযে গুইলারমো প্রদত্ত বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে যে, এহেন নজরদারির পরিপ্রেক্ষিতে গোটা সমাজে বিরূপ প্রতিক্রিয়া পরিলক্ষিত হচ্ছে। জাতীয় নিরাপত্তাকে বিপন্ন করা হচ্ছে। শাডোড্রাগন, লজিক্যালি ইনক এবং ভয়েজার ল্যাবরেটরি থেকে ফেডারেল প্রশাসন নাগরিকদের বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহ করে তার ভিত্তিতে মনিটরিং চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে দায়েরকৃত মামলায়। এই ৩টি কোম্পানীর কার্যক্রমে কি ধরনের নজরদারি এবং কেন করা হচ্ছে তা গত ডিসেম্বরে জানতে চেয়েছিল থিঙ্কট্যাংক। কোন জবাবই পাননি তারা। ‘ফ্রিডম অব ইনফরমেশন অ্যাক্ট’ অনুযায়ী এ রকম নিরবতা কখনো গণতান্ত্রিক সমাজের পরিপূরক হতে পারে না বলে মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে।

 

 

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১১:৫৫ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, ২৪ আগস্ট ২০২২

nypratidin.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর...

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  

Editor : Naem Nizam

Executive Editor : Lovlu Ansar