রবিবার ২১শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মহানবীকে নিয়ে বিজেপি নেত্রীর মন্তব্য, জাতিসংঘের প্রতিক্রিয়া

বিশ্ব ডেস্ক   |   বুধবার, ০৮ জুন ২০২২ | প্রিন্ট  

মহানবীকে নিয়ে বিজেপি নেত্রীর মন্তব্য, জাতিসংঘের প্রতিক্রিয়া

ভারতের ক্ষমতাসীন দল ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) দুই নেতা মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করায় এক ডজনেরও বেশি মুসলিম দেশের তীব্র প্রতিক্রিয়ার মুখোমুখি হয়েছে নয়াদিল্লি। এবার জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তনিও গুতেরেসের একজন মুখপাত্র ভারতের বহুল সমালোচিত এই ইস্যুতে বিবৃতি দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ‌আমরা সব ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধা ও সহনশীলতায় দৃঢ়ভাবে উৎসাহ জানাই।

দেশটির কট্টর হিন্দুত্ববাদী রাজনৈতিক দল ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) মুখপাত্র নুপুর শর্মা গত মাসে এক টেলিভিশন শোতে অংশ নিয়ে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) সম্পর্কে বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন। পরে দলটির নয়াদিল্লি শাখার গণমাধ্যম প্রধান নবীন জিন্দাল নুপুর শর্মার মন্তব্যের সমর্থনে টুইট করেন।

তাদের এই মন্তব্য দেশটির সংখ্যালঘু মুসলিম সম্প্রদায়কে ক্ষুব্ধ করে তোলে। এমনকি অভিযুক্তদের মন্তব্যের জেরে ভারতের কয়েকটি রাজ্যের মুসলিমরা বিক্ষিপ্তভাবে প্রতিবাদ বিক্ষোভ করেন। আর এর রেশ ভারতের গণ্ডি ছাড়িয়ে বাইরের বিশ্বেও ছড়িয়ে পড়ে; বিশেষ করে মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে।

সোমবার (৬ জুন) এক সংবাদ সম্মেলনে জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তনিও গুতেরেসের মুখপাত্র স্টেফানে ডুজারিকেরি কাছে বিজেপি নেতাদের বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে বৈশ্বিক নিন্দার ব্যাপারে সংস্থাটির অবস্থান জানতে চান পাকিস্তানি এক সাংবাদিক। জবাবে স্টেফানে ডুজারিক বলেছেন, আমি এই সংবাদটি দেখেছি। তবে আমি নিজে তাদের মন্তব্য দেখিনি। কিন্তু আমি আপনাকে বলতে পারি যে, আমরা সব ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধা এবং সহনশীলতায় দৃঢ়ভাবে উৎসাহ জানাই।

দেশে-বিদেশে তীব্র প্রতিক্রিয়ার মুখে ৫ জুন অভিযুক্ত নুপুর শর্মাকে দল থেকে বরখাস্ত এবং জিন্দালকে বহিষ্কার করে বিজেপি। পরে বিজেপির এই দুই নেতা প্রকাশ্যে ক্ষমা চেয়ে বিবৃতিও দিয়েছেন। কিন্তু এরপরও বিজেপির জ্যেষ্ঠ দুই নেতার বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে মুসলিম বিশ্বের ক্রমবর্ধমান ক্ষোভ ও তোপের মুখে পড়েছে ভারত।

মধ্যপ্রাচ্যের প্রভাবশালী দেশগুলোসহ এখন পর্যন্ত বিশ্বের অন্তত ১৫টি দেশ ভারতের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে। এসব দেশ ভারত ও বিজেপি সরকারের নিন্দা জানানোর পাশাপাশি দেশটিকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়েছে। মঙ্গলবার প্রকাশিত পৃথক প্রতিবেদনে এনডিটিভি বলছে, মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) সম্পর্কে বিজেপি নেতা নুপুর শর্মা এবং নবীন কুমার জিন্দালের কটূক্তির জেরে কূটনৈতিক ক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে।

যদিও ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকার বিভিন্ন দেশে এসব ক্ষোভ প্রশমিত করার চেষ্টা করেই চলেছে। নয়াদিল্লির দাবি, ভারত ও ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকার সকল ধর্মকেই সম্মান করে।

সংবাদমাধ্যমটি বলছে, মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) সম্পর্কে বিতর্কিত মন্তব্য ঘিরে ইরান, ইরাক, কুয়েত, কাতার, সৌদি আরব, ওমান, সংযুক্ত আরব আমিরাত, জর্ডান, আফগানিস্তান, বাহরাইন, মালদ্বীপ, লিবিয়া এবং ইন্দোনেশিয়া-সহ অন্তত ১৫টি দেশ ভারতের বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক প্রতিবাদ জানিয়েছে।

একইসঙ্গে এই দেশগুলো নিন্দা জানানোর পাশাপাশি মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-এর অপমান প্রত্যাখ্যান করেছে এবং ভারত সরকারকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানিয়েছে। সূত্র: দ্য হিন্দু, এনডিটিভি, বিবিসি।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১১:০৫ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, ০৮ জুন ২০২২

nypratidin.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর...

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  

Editor : Naem Nizam

Executive Editor : Lovlu Ansar