মঙ্গলবার ১৬ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৩রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শেখ হাসিনার সফর কেন্দ্র করে পক্ষ-বিপক্ষ কর্মসূচিতে সরগরম নিউইয়র্ক

যুক্তরাষ্ট্র প্রতিনিধি   |   রবিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ | প্রিন্ট  

শেখ হাসিনার সফর কেন্দ্র করে পক্ষ-বিপক্ষ কর্মসূচিতে সরগরম নিউইয়র্ক

নিউইয়র্কে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানাতে ব্যাপক প্রস্তুতি চালাচ্ছে আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী সংগঠনগুলো। পাশাপাশি বিএনপির পক্ষ থেকেও বিক্ষোভের প্রস্তুতি চলছে। ১৯ সেপ্টেম্বর স্থানীয় সময় সোমবার সন্ধ্যায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিশেষ ফ্লাইটে লন্ডন থেকে নিউইয়র্ক সিটির জেএফকে এয়ারপোর্টে অবতরণের কথা শেখ হাসিনার। সন্ধ্যা ৬টার পর ফ্লাইট অবতরণ করলে এয়ারপোর্টে গাড়ি পার্কিং এলাকার আশপাশে বিক্ষোভ প্রদর্শনের তেমন সুযোগ থাকবে না বলে বিএনপির নেতা-কর্মীরা বিকল্প হিসেবে ২৩ সেপ্টেম্বর শুক্রবার শেখ হাসিনার জাতিসংঘে ভাষণের সময় বাইরে বিক্ষোভের প্রস্তুতি নিচ্ছে।
উল্লেখ্য, জাতিসংঘের চলতি ৭৭তম সাধারণ অধিবেশনে বাংলাদেশের নেতা হিসেবে ৪৭ সদস্যের প্রতিনিধি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিউইয়র্কে আসছেন। ২৪ সেপ্টেম্বর শনিবার দুপুর পর্যন্ত তিনি নিউইয়র্কে অবস্থানের কথা। এরপর ওয়াশিংটন ডিসিতে যাবার কথা।

কূটনৈতিক সূত্রে জানা গেছে, নিউইয়র্কে অবস্থানকালে শেখ হাসিনা বেশ কটি রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ নেতার সাথে একান্ত বৈঠকে মিলিত হবেন। ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ পরিস্থিতির পাশাপাশি রোহিঙ্গা ইস্যুও শান্তিপূর্ণ অবসানে আন্তর্জাতিক মহলের জোরালো ভূমিকা প্রত্যাশা করবেন।

কূটনৈতিক সূত্রে এ সংবাদদাতা আরো জানতে পেরেছে যে, ব্যালেন্সড কূটনীতির ক্ষেত্রে শেখ হাসিনা ইতিমধ্যেই বিশেষ এক অবস্থানে অধিষ্ঠিত হয়েছেন। এ কারণে সাধারণ অধিবেশনে তাঁর ভাষণের প্রতি কৌতূহল রয়েছে অনেক রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানের। ‘কারো সাথে বৈরিতা নয়-সকলের সাথে বন্ধুত্ব’ আলোকে শেখ হাসিনার বিচক্ষণতাপূর্ণ অবস্থানকে গণতান্ত্রিক বিশ্বও ইতিবাচক দৃষ্টিতে দেখছে।
এসব কারণে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মীরা ফুরফুরে মেজাজেই দলীয় নেতার জাতিসংঘ সফরকে সাফল্যমন্ডিত করার প্রস্তুতি নিচ্ছে। জামাত-শিবিরের মদদে বিএনপির বিক্ষোভ প্রতিহত করার ক্ষেত্রেও তারা কঠোর অবস্থান ঘোষণা করেছেন। এ লক্ষ্যে গত এক সপ্তাহে নিউইয়র্ক সিটির জ্যাকসন হাইটস, জ্যামাইকা, ওজোনপার্ক, ব্রুকলীন, ব্রঙ্কসের বিভিন্ন স্থানে ছোট-বড় ১৭টি সমাবেশ হয়েছে আওয়ামী লীগের বিভিন্ন শাখা সংগঠনের উদ্যোগে। সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথেও তারা দেন-দরবার করছেন জাতিসংঘের সামনে শান্তি সমাবেশকে ব্যাপকভাবে সফল করার জন্যে।

যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির কমিটির অনুমোদন গত ১২ বছরে না এলেও অতি সম্প্রতি নিউইয়র্ক স্টেট এবং মহানগরের দুটি কমিটির অনুমোদন দিয়েছে হাই কমান্ড। তারা জনসংযোগ চালাচ্ছেন ‘যেখানে হাসিনা-সেখানেই প্রতিরোধ’ স্লোগানে। ১৬ সেপ্টেম্বর শুক্রবার সন্ধ্যায় নিউইয়র্ক স্টেট বিএনপির উদ্যোগে ব্রুকলীনের পিটকিন এভিনিউতে এশিয়ান কাবাব অ্যান্ড কারির সামনে পথসভা অনুষ্ঠিত হয়। নাসিম আহমেদের সভাপতিত্বে এ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন নিউইয়র্ক স্টেট বিএনপির আহবায়ক মো. অলিউল্লাহ আতিকুর রহমান এবং প্রধান বক্তা ছিলেন সদস্য-সচিব সাঈদুর রহমান সাঈদ। অন্যান্যের মধ্যে। অতিথি হিসেবে আরো বক্তব্য দেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক গোলাম ফারুক শাহীন, স্টেট বিএনপির যুগ্ম সদস্য সচিব রিয়াজ মাহমুদ, যুগ্ম আহব্বায়ক সাংবাদিক আনিসুর রহমান, দেওয়ান কাউসার, আশরাফ হোসেন, গোলাম হোসেন, মোতাহার হোসেন, আলমগীর হোসেন, যুক্তরাষ্ট্র যুবদলের নেতা আবুল আবুল কাসেম, বাচ্চু মিয়া, আমিনুল ইসলাম প্রমুখ। এসময় বক্তারা উল্লেখ করেন, শেখ হাসিনা পদত্যাগ করে কেয়ারটেকার সরকার গঠিত হলেই বিএনপি নির্বাচনে যাবে। এ কথাটি শেখ হাসিনাকে জানিয়ে দিতে সর্বত্র স্লোগানে মুখরিত থাকবেন নেতা-কর্মীরা।

বিক্ষোভ কর্মসূচির সমর্থনে যুক্তরাষ্ট্র জাসাসও জনসংযোগ-সমাবেশ চালাচ্ছে সিটির বাংলাদেশি অধ্যুষিত এলাকাসমূহে। যুক্তরাষ্ট্র জাসাসের আহবায়ক ইঞ্জিনিয়ার সায়েম রহমান এবং সদস্য-সচিব জাহাঙ্গির সোহরাওয়ার্দির নেতৃত্বে এসব কর্মসূচি চলছে।

যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির কমিটি না থাকলেও সাবেক নেতা গিয়াস আহমেদ, মোস্তফা কামাল পাশা বাবুল এবং যুবদলের কেন্দ্রীয় নেতা এম এ বাতিন, যুক্তরাষ্ট্র ছাত্রদলের নেতা মাজহারুল ইসলাম জনি প্রমুখের সমন্বয়ে জনসংযোগ চালানো হচ্ছে।

অপরদিকে, আগের মতো এবারও শেখ হাসিনাকে নাগরিক সংবর্ধনা প্রদানের কর্মসূচি নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ। এটি অনুষ্ঠিত হবে ২৪ সেপ্টেম্বর বেলা ১২টায় এস্টোরিয়া ওয়ার্ল্ড ম্যানরে। সেখানে ভার্চুয়ালে বক্তব্য দেবেন বাংলাদেশের ইতিহাসেই শুধু নয় আধুনিক-গণতান্ত্রিক বিশ্বে দীর্ঘ সময়ের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ উপলক্ষে ব্যাপক প্রস্তুতি চলছে সর্বত্র।

ক্যালিফোর্নিয়া, ফ্লোরিডা, জর্জিয়া, টেক্সাস, মিশিগান, ইলিনয়, ওয়াশিংটন মেট্র, পেনসিলভেনিয়া, নিউজার্সি, কানেকটিকাট, ম্যাসেচুৃসেটস-সহ কয়েকটি স্টেটের নেতা-কর্মীরাও আসবেন বলে সংগঠনের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান জানিয়েছেন। অর্থাৎ আওয়ামী পরিবারে এক ধরনের উৎসবের আমেজ তৈরী হয়েছে শেখ হাসিনার জাতিসংঘ সফর ঘিরে।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১২:৩৩ অপরাহ্ণ | রবিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২

nypratidin.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর...

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  

Editor : Naem Nizam

Executive Editor : Lovlu Ansar