শুক্রবার ২১শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাশিয়ার হামলার পর দেশজুড়ে বিদ্যুৎ ব্যবহার সীমিত করল ইউক্রেইন

বিশ্ব ডেস্ক   |   বৃহস্পতিবার, ২০ অক্টোবর ২০২২ | প্রিন্ট  

রাশিয়ার হামলার পর দেশজুড়ে বিদ্যুৎ ব্যবহার সীমিত করল ইউক্রেইন

রাশিয়ার ব্যাপক ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন হামলায় কিছু উৎপাদন কেন্দ্র ধ্বংস হওয়ার পর দেশজুড়ে বিদ্যুতের ব্যবহার সীমিত করেছে ইউক্রেন। ঠাণ্ডা শীতের মাসগুলো শুরু হওয়ার আগে দেশটি এ পরিস্থিতির মুখোমুখি হল।

সরকারি কর্মকর্তারা ও গ্রিড অপারেটর উক্রেনারহো জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সকাল ৭টা থেকে রাত ১১টার মধ্যবর্তী সময়ে বিদ্যুৎ সরবরাহ সীমিত থাকবে। দেশটির প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির একজন সহকারী বলেছেন, লোকজন বিদ্যুতের ব্যবহার না কমালে ব্ল্যাকআউটের সম্ভাবনাও আছে।

“ঠাণ্ডা আবহাওয়া শুরু হওয়ার পর আমরা আরও ঘন ঘন আপনাদের সাহায্য চাইতে পারি, এটিও বাদ দিচ্ছি না আমরা,” বলেছে উক্রেনারহো। বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, রাশিয়া গত কয়েকদিন ধরে ইউক্রেইনের বিদ্যুৎ ও পানি সরবরাহ অবকাঠামোতে ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন হামলা জোরদার করেছে।

বুধবার নিজের রাত্রিকালীন ভিডিও ভাষণে প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি বলেছেন, “গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামোর নতুন ক্ষতি হয়েছে। আজ শত্রুরা তিনটি বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র ধ্বংস করে দিয়েছে।

“শীত মৌসুমকে সামনে রেখে আমরা সব পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি। অংশীদারদের সহায়তায় আমরা শত্রুর শতভাগ ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন গুলি করে ফেলে না দেওয়া পর্যন্ত রাশিয়ার সন্ত্রাস জ্বালানি স্থাপনাগুলোর দিকে ধাবিত হবে বলে আমাদের ধারণা।”

চলতি সপ্তাহের প্রথমদিকে জেলেনস্কি জানিয়েছিলেন, রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় তার দেশের এক তৃতীয়াংশ বিদ্যুৎ স্টেশন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ইউক্রেইনের পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর লভিভের মেয়র গণমাধ্যমে জানিয়েছেন, ক্ষতিগ্রস্ত বিদ্যুৎ সাবস্টেশনগুলো মেরামত করতে কয়েক মাস লেগে যেতে পারে। জেলেনস্কি জানিয়েছেন, ইউক্রেইন এ পর্যন্ত রাশিয়ার ব্যবহার করা ইরানের তৈরি ২৩৩টি ড্রোন গুলি করে নামিয়েছে, এর মধ্যে বুধবারের ২১টিও আছে।

রয়টার্সের প্রত্যক্ষদর্শী সাংবাদিক জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার ভোররাতে ইউক্রেইনের দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর মাইকোলাইভে পাঁচটি ড্রোন আঘাত হেনেছে; তবে এগুলো কোথায় বিস্ফোরিত হয়েছে বা এতে কতোটা ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তা পরিষ্কার হয়নি।

রাশিয়া ইরানের তৈরি শাহেদ-১৩৬ ‘কামিকাজে ড্রোন’ ব্যবহার করছে বলে অভিযোগ ইউক্রেইনের। এসব ড্রোন উড়ে তাদের লক্ষ্যস্থলে গিয়ে বিস্ফোরণ ঘটায়। ইরান এসব ড্রোন সরবরাহের কথা আর ক্রেমলিন এগুলো ব্যবহারে কথা অস্বীকার করেছে।

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নেড প্রাইস জানিয়েছেন, বুধবার জাতিসংঘে নিরাপত্তা পরিষদের এক বৈঠকে যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন ও ফ্রান্স ইরানের কথিত ড্রোন সরবরাহের বিষয়টি তুলেছে।

জাতিসংঘে নিযুক্ত রাশিয়ার সহকারী রাষ্ট্রদূত দিমিত্রি পলিয়ানস্কি সাংবাদিকদের বলেছেন, ইউক্রেইন ও পশ্চিমারা যেগুলোকে ইরানের তৈরি বলে দাবি করছে ভূপাতিত হওয়া সেসব ড্রোন পরীক্ষার জন্য জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস যদি বিশেষজ্ঞদের ইউক্রেইনে পাঠায় তবে গুতেরেস ও তার কর্মীর সঙ্গে সহযোগিতার বিষয়টি পুনর্মূল্যায়ন করবে রাশিয়া।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১২:৩৪ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ২০ অক্টোবর ২০২২

nypratidin.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০  

Editor : Naem Nizam

Executive Editor : Lovlu Ansar