শনিবার ২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশ প্রতিদিনের মধ্যাহ্নভোজে প্রবাসীদের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন

মার্কিন রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হয়ে বাংলাদেশের কল্যাণে অবদান রাখুন

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   রবিবার, ০৮ জানুয়ারি ২০২৩ | প্রিন্ট  

মার্কিন রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হয়ে বাংলাদেশের কল্যাণে অবদান রাখুন

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন এবং হোস্ট নঈম নিজামের সাথে প্রবাসের বিশিষ্টজনেরা। ছবি-বাংলাদেশ প্রতিদিন।

মার্কিন মুল্লুকে বাংলাদেশের ইমেজ মহিমান্বিত করতে প্রবাসীদের ভূমিকা অপরিসীম এবং গত এক দশকে বাংলাদেশি-আমেরিকানরা বাংলাদেশের অর্থনৈতিক কর্মকান্ড চাঙ্গা রাখতে যে ভূমিকা রেখেছেন তা অনস্বীকার্য। এমন অভিমত পোষণ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে এ মোমেন বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অদম্য গতিতে এগিয়ে চলা বাংলাদেশকে থামিয়ে দিতে একটি মহল গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে।

এ ব্যাপারে সচেতন প্রবাসীদেরকে সরব থাকতে হবে। চলমান কর্মকান্ডকে মার্কিন বন্ধুদের কাছে যথাযথভাবে উপস্থাপন করলেই তারা আর বিভ্রান্ত হবেন না। এটাই হচ্ছে সময়ের দাবি।
বাংলাদেশ প্রতিদিনের উদ্যোগে নিউইয়র্ক সফররত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিশিষ্ট কয়েকজন প্রবাসীর সম্মানে ৭ জানুয়ারি ঢাকা ক্লাবের সিনহা লাউঞ্জে মধ্যাহ্নভোজ-পর্বে পররাষ্ট্রমন্ত্রী তার দীর্ঘ ৩৩ বছরের প্রবাস-জীবনের আলোকপাত করেন।

বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবাসীগণের মধ্যে যারা স্টেট সিনেট, সিটি কাউন্সিলসহ বিভিন্ন পর্যায়ে ইলেক্টেড হয়েছেন-তাদের অভিনন্দন জানিয়ে ড. মোমেন বলেন, তারা অবশ্যই বাঙালির অহংকার এবং তারাই মার্কিন প্রশাসনকে বাংলাদেশ সম্পর্কে সঠিক তথ্য অবহিত করার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী উল্লেখ করেন, প্রবাসীরা দেশীয় রাজনীতি ছেড়ে যতবেশী মার্কিন রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হবেন, ততবেশী লাভবান হতে পারবে বাংলাদেশ। নিজ নিজ এলাকার সিনেটর-কংগ্রেসম্যানদের সাথে বাংলাদেশের জাতীয় ইস্যুতে প্রবাসীরা যে ধরনের অবদান রাখতে সক্ষম হবেন-তা ভাড়াটে লবিস্ট দিয়ে অনেক সময়েই সম্ভব হয় না।
এ অনুষ্ঠানে নিউ হ্যামশায়ার স্টেটের রিপ্রেজেনটেটিভ আবুল খান বলেন, কয়েক সপ্তাহ যাবত ঢাকা এবং অন্যান্য স্থান পরিভ্রমণের সময় অবকাঠামোগত উন্নয়নের পাশাপাশি মানুষের জীবন-মানের অভূতপূর্ব উন্নয়নের ঘটনায় আমি অভিভূত। যোগাযোগ ব্যবস্থা অসাধারণ অগ্রগতি সাধিত হওয়ায় গ্রামের সাথে শহরের ব্যবধান ঘুচেছে। প্রত্যন্ত অঞ্চলে বিদ্যুৎ পৌঁছে যাওয়ায় মানুষের কর্মঘন্টা বেড়েছে। চোখে না দেখলে এগুলো অনুধাবন করা সম্ভব হতো না।
অনুষ্ঠানে ফরিদা ইয়াসমিনকে প্রাণঢালা শুভেচ্ছা জানানো হয় জাতীয় প্রেসক্লাবের পুনরায় সভাপতি নির্বাচিত হওয়ায়। অতিথির মধ্যে আরো ছিলেন হাডসন সিটির কাউন্সিলম্যান শেরশাহ মিজান, বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতির অন্যতম পৃষ্টপোষক গোলাম ফারুক ভূইয়া, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের যুক্তরাষ্ট্র শাখার সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের মিয়া, ফোবানার সাবেক চেয়ারম্যান জাকারিয়া চৌধুরী, ভয়েস অব আমেরিকার বাংলা বিভাগের প্রধান শতরূপা বড়ু–য়া, যুক্তরাষ্ট্র বঙ্গবন্ধু আইনজীবী পরিষদের প্রধান ও বিশিষ্ট আবাসন ব্যবসায়ী মোর্শেদা জামান, বাংলাদেশ প্রতিদিন উত্তর আমেরিকা সংস্করণের নির্বাহী সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা লাবলু আনসার, জে এ্যান্ড সি ইমপেক্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নূর মোহাম্মদ, দ্য কান্ট্রি পত্রিকার সম্পাাদক হেমায়েত হোসেন প্রমূখ। এ সময় দেশ ও প্রবাসের নানা ইস্যুতেও বিস্তারিত মতবিনিময় করা হয়। অনানুষ্ঠানিক এ পর্বে সকলকে স্বাগত জানান বাংলাদেশ প্রতিদিনের সম্পাদক নঈম নিজাম।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১:২৯ অপরাহ্ণ | রবিবার, ০৮ জানুয়ারি ২০২৩

nypratidin.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  

Editor : Naem Nizam

Executive Editor : Lovlu Ansar