বৃহস্পতিবার ২৩শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কবুতর আর বেলুন উড়িয়ে নিউইয়র্কে বিএনপির প্রতিষ্ঠা-বার্ষিকী সমাবেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   শুক্রবার, ০২ সেপ্টেম্বর ২০২২ | প্রিন্ট  

কবুতর আর বেলুন উড়িয়ে নিউইয়র্কে বিএনপির প্রতিষ্ঠা-বার্ষিকী সমাবেশ

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কার্যক্রম শুরু হয় বিশেষ মোনাজাতের মধ্যদিয়ে। ছবি-বাংলাদেশ প্রতিদিন।

কবুতর আর বেলুন উড়িয়ে উৎসবের আমেজে নিউইয়র্কে ১ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার অপরাহ্নে বিএনপির ৪৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠান হলো। এতে বিএনপি ছাড়াও জাসাস, যুবদল, ছাত্রদল, শ্রমিক দলের নেতা-কর্মীরা ছিলেন। মূল আয়োজক ছিল নিউইয়র্ক মহানগর (দক্ষিণ) বিএনপি এবং সহায়তা করেছে নিউইয়র্ক স্টেট ও মহানগর (উত্তর) কমিটি।

হোস্ট সংগঠন নিউইয়র্ক মহানগর (দক্ষিণ) বিএনপির আহবায়ক হাবিবুর রহমান সেলিম রেজার সভাপতিত্বে এবং সদস্য-সচিব বদিউল আলমের সঞ্চালনায় জ্যাকসন হাইটসের ডাইভার্সিটি প্লাজায় এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক সভাপতি আব্দুল লতিফ সম্রাট।

এ সময় অতিথি হিসেবে পাশে ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক আন্তর্জাতিক সম্পাদক ও মূলধারার রাজনীতিক গিয়াস আহমেদ, বিএনপির সাবেক যুগ্ম আহবায়ক গোলাম ফারুক শাহীন, কোষাধ্যক্ষ জসীম ভূঁইয়া, যুবদলের সাবেক সহ-আন্তর্জাতিক সম্পাদক এম এ বাতিন, নিউইয়র্ক স্টেট বিএনপির আহবায়ক মাওলানা আতিকুর রহমান এবং সদস্য-সচিব সাঈদুর রহমান সাঈদ, যুক্তরাষ্ট্র যুবদলের সভাপতি জাকির এইচ চৌধুরী, সহ-সভাপতি আবুল কাশেম, সাংগঠনিক সম্পাদক আমানত হোসেন আমান, যুক্তরাষ্ট্র জাসাসের সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার সায়েম রহমান এবং সেক্রেটারি জাহাঙ্গির সোহরাওয়ার্দি, আরাফাত রহমান কোকো স্মৃতি পরিষদের সভাপতি শাহাদৎ হোসেন রাজু, যুক্তরাষ্ট্র ছাত্রদলের সেক্রেটারি মাজহারুল ইসলাম জনি, নিউইয়র্ক মহানগর (উত্তর) আহবায়ক আহবাব চৌধুরী, যুগ্ম আহবায়ক রেজবুল চৌধুরী প্রমুখ।

যুক্তরাষ্ট্র এবং বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীতের পর উম্মুক্ত ময়দানে স্থাপিত এলইডি স্ক্রিনে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের শুভেচ্ছা বক্তব্য সম্প্রচার করা হয়। এসময় সকলে স্লোগান ধরেন ‘ভয় করিনা মরনে-শহীদ জিয়া স্মরণে’, ‘আজকের এই দিনে-জিয়া তোমায় মনে পড়ে’, লড়াই লড়াই লড়াই চাই-লড়াই করে বাঁচতে চাই’, ‘বাঁচতে হলে লড়তে হবে-এ লড়াইয়ে জিততে হবে’ ইত্যাদি। সমাবেশে অংশগ্রহণকারিরা সমস্বরে সংকল্প ব্যক্ত করেন হাই কমান্ডের নির্দেশ অনুযায়ী সকলে ঐক্যবব্ধ থাকবেন দুর্বার আন্দোলনের প্রশ্নে।

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের আত্মার মাগফেরাত এবং চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার সুস্বাস্থ্য কামনায় বিশেষ মোনাজাতে নেতৃত্ব দেন আব্দুল লতিফ সম্রাট। এরপর একটি র‌্যালি বের হয় এবং তা নিকটস্থ ক্বাবাব কিং রেস্টুরেন্টে গিয়ে এক আলোচনা সভায় মিলিত হয়। সভাপতিত্ব করেন মাওলানা আতিকুর রহমান। সঞ্চালনা করেন সাঈদুর রহমান সাঈদ। সেখানে বাংলাদেশে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আহবানে বক্তব্য দেন বিএনপির সাবেক যুগ্ম আহবায়ক গোলাম ফারুক শাহীন, নিউইয়র্ক স্টেট বিএনপির যুগ্ম আহব্বায়ক আনিসুর রহমান, হুমায়ুন কবীর, আশরাফ হোসেন, এম শহীদুল সিকদার, যুগ্ম সদস্য সচিব রিয়াজ মাহমুদ, যুগ্ম আহব্বায়ক নাসিম আহমেদ এবং দেওয়ান কাওসার, সদস্য জিয়াউর রহমান মিলন, আব্দুল কাইয়ুম প্রমুখ।

এদিকে, মূল অনুষ্ঠান শুরুতে বিভিন্ন কমিটির নেতৃবৃন্দের নাম ঘোষণায় কিছুটা অসামঞ্জস্য দেখা দিলে নেতা-কর্মীরা ক্ষুব্ধ হয়ে পরস্পরের বিরুদ্ধে তেড়ে গিয়েছিলেন। তবে বিএনপির সাবেক সভাপতি আব্দুল লতিফ সম্রাট, যুবদল নেতা এম এ বাতিন, আবুল কাশেম প্রমুখের হস্তক্ষেপে তা বেশীদূর গড়ায়নি বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা উল্লেখ করেন।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৪:৪৫ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, ০২ সেপ্টেম্বর ২০২২

nypratidin.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর...

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  

Editor : Naem Nizam

Executive Editor : Lovlu Ansar