শুক্রবার ১৪ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এখনো নিয়ন্ত্রণহীন মাউই দ্বিপের লেলিহান শিখা, হতাহতের মধ্যে নেই কোনো বাংলাদেশি

লাবলু আনসার, যুক্তরাষ্ট্র   |   শনিবার, ১২ আগস্ট ২০২৩ | প্রিন্ট  

এখনো নিয়ন্ত্রণহীন মাউই দ্বিপের লেলিহান শিখা, হতাহতের মধ্যে নেই কোনো বাংলাদেশি

ভয়াবহ দাবানলে পুড়ে ছারখাড় হয়ে যাওয়া হাওয়াই স্টেটের মাউই দ্বীপে নিহত এবং নিখোঁজদের মধ্যে কোন বাংলাদেশী নেই বলে শুক্রবার সন্ধ্যায় এ সংবাদদাতাকে নিশ্চিত করেছেন সেখানকার অনরারি কন্সাল জেনারেল জান রুমি। বাংলাদেশের এই কন্সাল জেনারেল রুমি আরো জানান, সিংহভাগ বালিাদেশী আমেরিকানই বাস করছি হনলুলু সিটির ওয়াহো দ্বিপে। দাবানলের থাবা বিস্তৃত হওয়া অপর দ্বীপ বিগ আইল্যান্ডে দু’তিনটি পরিবারের বসতি ছিল। তবে তারাও নিরাপদে অন্যত্র সরে গেছেন বলে জেনেছি। আমরা এই ভয়ংকর দাবানলে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্যে শুকনা খাবারসহ প্রয়োজনীয় সামগ্রী সংগ্রহ করছি। লাহাইনা সিটির মাউই দ্বীপে সর্বশান্ত হওয়া পরিবারের মধ্যে বিতরণের জন্যে শীঘ্রই সেখানে যাবো।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার রাতে শুরু এ দাবানলের প্রাদুর্ভাব ঘটে ১১০০ কিলোমিটার দূর দিয়ে বয়ে যাওয়া হারিকেন ডোরার প্রভাবে। সেই হারিকেন তীব্র গতিতে সাগরের উপর দিয়ে অতিবাহিত হবার সময় পার্শ্ববর্তী এই দ্বীপে আগুণ ছড়িয়ে পড়ে। সিটির মেয়র রিচার্ড বিসেন জুনিয়র এবং স্টেট গভর্নর যশ গ্রিন যুক্তি দেখাচ্ছেন যে, আগে থেকেই প্রচন্ড খরায় অনেক বৃক্ষ এবং সবুজ ঘাস শুকিয়ে গিয়েছিলো। সহজেই সেগুলোতে আগুণ ছড়িয়ে পড়েছে। আগুনের সেই লেলিহান শিখা শুক্রবার রাতেও অব্যাহত ছিল।

স্টেট প্রশাসন সূত্রে শুক্রবার সন্ধ্যায় জানানো হয়েছে যে, এ যাবত ৬৭ জনের লাশ উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। নিখোঁজ রয়েছে এক হাজারের অধিক মানুষ। দমকল বাহিনীসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নিরাপত্তা রক্ষীরা হেলিকপ্টার, জাহাজ, ছোট নৌকায় সমুদ্রবেষ্টিত এই দ্বীপে অনুসন্ধান চালাচ্ছেন। বিমান থেকে পানি ছিটানো হচ্ছে আগুণ নেভানোর জন্যে। কিন্তু কোন কিছুই কাজে লাগছে না বলে জানান জান রুমি। আশপাশের বাসিন্দাদের নিরাপদ আশ্রয়ে যাবার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, পর্যটকদের কাছে অত্যন্ত জনপ্রিয় পশ্চিম উপক’লিয় শহর লাহাইনা। এই সৈকত শহরের ৯০% অবকাঠামো ধ্বংস হয়ে গেছে। ঘরবাড়ি, হোটেল-মোটেল, অন্যান্য স্থাপনাসহ প্রায় দুই হাজার ভবন পুড়ে মাটির সাথে মিশে গেছে। স্টেট গভর্নর এই দাবানলকে হ্ওায়াইয়ের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় প্রাকৃতিক দুর্যোগ হিসেবে অভিহিত করেছেন। কনসাল জেনারেল উল্লেখ করেন, হনলুলুতে বেশ কয়েক ডজন বাংলাদেশি শিক্ষার্থীও রয়েছেন। তারাও ভালো আছেন বলে জেনেছি।

এদিকে, অভিযোগ উঠেছে যে, এমন একটি পরিস্থিতি তৈরী হতে পারে এমন কোন পূর্বাভাস দেয়া হয়নি। উল্লেখ্য, ১৯৫৯ সালে হাওয়াই যুক্তরাষ্ট্রের স্টেট হিসেবে অন্তর্ভুক্তির পর এমন ভয়ংকর প্রাকৃতিক দুর্যোগে আর কখনো নিপতিত হয়নি। মাউই কাউন্টি মেয়র রিচার্ড বিসেন জুনিয়র আরো বলেছেন, এখনও লেলিহান শিখা নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়নি। বিশেষ প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত কুকুর নামানো হয়েছে হতাহতদের সন্ধানে।
মেয়র আশপাশের সকল হোটেল মালিকের প্রতি আহবান জানিয়েছেন গৃহহারাদের ঠাঁই দেয়ার জন্যে। বাসা-বাড়িতেও আশ্রয় প্রদানের অনুরোধ জানানো হয়েছে মেয়রের পক্ষ থেকে।

হেলিকপ্টার পাইলট রিচার্ড ওলস্টেন গণমাধ্যমকে শুক্রবার বলেন, অবস্থা ভয়ংকর। ৫২ বছর ধরে আমি হাওয়াইয়ের আকাশে উড়ছি। এমন অবস্থা আগে কখনো দেখিনি। সত্যি খুবই ভয় পাচ্ছি অপরিচিত পরিবেশ দেখে। আগুনের আঁচ আর ধোঁয়া থেকে বাঁচতে উপকূলের অনেকে সাগরে ঝাঁপ দিয়েছিলেন। এরমধ্যে ১৪জনকে উদ্ধার করেছে উপকূলীয় রক্ষীরা।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ২:০২ অপরাহ্ণ | শনিবার, ১২ আগস্ট ২০২৩

nypratidin.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০  

Editor : Naem Nizam

Executive Editor : Lovlu Ansar