শুক্রবার ২১শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মিশিগানে মুশফিকুল ফজল আনসারীকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা

আশিক রহমান   |   শুক্রবার, ২৯ জুলাই ২০২২ | প্রিন্ট  

মিশিগানে মুশফিকুল ফজল আনসারীকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা

মতবিনিময় সভায় কথা বলছেন মুশফিক ফজল আনসারী। ছবি-বাংলাদেশ প্রতিদিন।

দুর্নীতির মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সাবেক সহকারী প্রেস সচিব ও জাস্ট নিউজ ওয়েব পোর্টালের সম্পাদক মুশফিকুল ফজল আনসারীকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেছে মিশিগান আওয়ামী লীগ।
রবিবার ২৪ জুলাই অপরাহ্নে হ্যামট্রামিক শহরের কাবাব হাউজের পার্কিং লটে মিশিগান আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ এবং সহযোগি সংগঠনের বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মীর প্রতিবাদ সমাবেশে দেশপ্রেমিক প্রতিটি প্রবাসীকে বিশেষ মহলের বাংলাদেশ বিরোধী ষড়যন্ত্র সম্পর্কে সজাগ থাকার আহবানও উচ্চারিত হয়।

উল্লেখ্য, গত ১৭ জুলাই মিশিগানের হ্যামট্রামিক শহরের কাবাব হাউজে ‘বাংলা প্রেস ক্লাব, মিশিগান’র মতবিনিময় সভায় মুশফিকুল ফজল আনসারী বক্তব্য রাখছিলেন। তিনি সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র উন্নয়ন ও শাসন ব্যবস্থা, দেশের সকল সংবাদ মাধ্যমের স্বাধীনতা ও বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর আইএসপিআর এর ভূমিকা নিয়ে উদ্ভট ও বিদ্বেষমূলক কথা বলছিলেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত মিশিগান স্টেট আওয়ামী লীগ সভাপতি ফারুক আহমদ চাঁন সরকার বিরোধী অপপ্রচারণার মিশনের অংশ হিসেবে এমন ষড়যন্ত্রমূলক বক্তব্যের প্রতিবাদ করলে সেখানে থাকা বিএনপি নেতা-কর্মীরা তাঁর সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন, এমনকি তাকে ধাক্কিয়ে অনুষ্ঠানস্থল থেকে বের করে দেয়া হয়।

এক পর্যায়ে অনুষ্ঠানস্থলে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির নেতাকর্মীদের মধ্যে কথা কাটাকাটি, একজন আরেকজনের প্রতি তেড়ে যাবার ঘটনাও ঘটে। সরকার বিরোধী বক্তব্য ও ফারুক আহমদ চানের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণের ঘটনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এবং বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত হওয়ায় মিশিগান আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা প্রতিবাদমূখর হয়ে উঠেন এবং এই সমাবেশের আয়োজন করেন।
এ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন মিশিগান মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি আব্দুস শাকুর খান মাখন। যৌথভাবে সঞ্চালনা করেন মহানগর আওয়ামী লীগ সেক্রেটারি মোহাম্মদ মুতালিব ও স্টেট আওয়ামী লীগ সেক্রেটারি আবু মুসা।
মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি আব্দুস শাকুর খান মাখন বলেন, প্রেসক্লাবের ঐ অনুষ্ঠানে যারা উপস্থিত ছিলেন তার অধিকাংশই বিএনপি ও জামাত সমর্থিত নেতাকর্মী। আওয়ামী লীগের মাত্র ২/৩ জন নেতা ছিলেন। আমরা যদি ঘটনার সময় সেখানে থাকতাম তাহলে তখনই ওদেরকে দাতভাঙ্গা জবাব দিতাম। ওদের নসিব ভাল ছিল, আমাদের স্টেট আওয়ামী লীগের সভাপতি ভদ্র ও স্বজ্জন মানুষ। উনি আমাদেরকে সাথে সাথে জানাননি।
মাখন উল্লেখ করেন, এই সাংবাদিক দলীয় এজেন্ডা বাস্তবায়ন ও নিজের স্বার্থ হাসিল করতে প্রবাসে থেকে রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছেন এবং তার বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে মিশিগানে বাংলাদেশীদের মাঝে বিভেদ সৃষ্টি হয়েছে। সেজন্য আমি মিশিগান মহানগর আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে সাংবাদিক নামধারী জামাত-শিবিরের এজেন্ট মুশফিক ফজল আনসারীকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করলাম।
এ প্রতিবাদ সভায় আরোও বক্তব্য রাখেন মিশিগান স্টেট আওয়ামী লীগ সভাপতি ফারুক আহমদ চান, বীর মুক্তিযোদ্ধা সফিকুল ইসলাম, জাসদ নেতা জাবেদ চৌধুরী, মিশিগান বঙ্গবন্ধু পরিষদ সভাপতি আব্দুল আহাদ, যুবলীগ সভাপতি আজিজ সুমন, সেক্রেটারি শেখ বদরুদ্দোজা জুনেদ, ছাত্রলীগের আহবায়ক খাজা আফজাল হোসেন, যুগ্ম আহবায়ক কাজী মামুন। এছাড়াও মিশিগান স্টেট ও মহানগর আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষকলীগ ও ছাত্রলীগের অন্তত ২৫/৩০ জন নেতা অভিযোগ করেন যে, জামাত-শিবিরের অর্থে লন্ডনে বসবাসরত এক নেতার নির্দেশে সাংবাদিক নামধারী এই মুশফিক প্রকারান্তরে রাজনৈতিক তৎপরতা চালাচ্ছেন।
এদিকে সাংবাদিক মুশফিকুল ফজল আনসারীর বক্তব্যকে কেন্দ্র করে উদ্ভুত পরিস্থির জন্য দু:খ প্রকাশ করেছে বাংলা প্রেস ক্লাব মিশিগান। ক্লাবটির সভাপতি সৈয়দ শাহেদুল হক এবং সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা কামাল স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই দু:খ প্রকাশ করা হয়েছে।
বিবৃতিতে তারা বলেন, গেল ১৭ জুলাই বাংলা প্রেস ক্লাবের অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় অতিথি বক্তা মুশফিকুল ফজল আনসারীর বক্তব্য উনার একান্তই নিজের। এরসাথে প্রেস ক্লাবের কোনো সম্পর্ক নেই। তার এই বক্তব্যকে কেন্দ্র করে অনাকাঙ্খিত ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান।
সাংবাদিক নেতারা বলেন, বাংলা প্রেস ক্লাব একটি অরাজনৈতিক সংগঠন। এর মূল লক্ষ্য হচ্ছে বাংলাদেশি প্রবাসীদেরকে সাহায্য-সহযোগিতার মাধ্যমে প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশের উন্নয়নে সহযোগিতার হাতকে প্রশস্থ করা। দলমত নির্বিশেষে ঐক্যবদ্ধভাবে প্রবাসীদের স্বার্থ সুরক্ষায় আমরা সকলের সাথে কাধে কাধ মিলিয়ে কাজ করতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞবদ্ধ।
অপরদিকে, মার্কিন মুল্লুকে বিএনপি-জামাত আমলের প্রধানমন্ত্রী (বর্তমানে দুর্নীতির মামলায় দন্ডিত) খালেদা জিয়ার সহকারি প্রেস সেক্রেটারি মুশফিকুল ফজল আনসারীর সাম্প্রতিক অপতৎপরতার নিন্দা, প্রতিবাদ জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট বীর মুক্তিযোদ্ধা এম ফজলুর রহমান। এ সংবাদদাতাকে ২৫ জুলাই সন্ধ্যায় ক্ষুব্ধ ফজলুর রহমান জানান, ‘রাইট টু ফ্রিডম’ নামক একটি সংস্থার আড়ালে জামাত-শিবিরের এজেন্ডা প্রচারে ব্যস্ত মুশফিক ফজল আনসারী প্রকারান্তরে গণমাধ্যমের পরিচয়কে খর্ব করছেন। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে চলা বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক ইমেজ বিনষ্টের মতলবে কারণে-অকারণে কথকতা ছড়াচ্ছেন বিশেষ একটি অঙ্গনে।

এর পরিণতি দেখা গেল মিশিগানে একটি প্রেসক্লাবের অনুষ্ঠানে মাস্তানী কায়দায় বাংলাদেশের ইমেজ বিপন্নকারি কথাবার্তা বলার সময় প্রতিরোধ গড়ে উঠায়। শুধু তাই নয়, বিশেষ একটি মহলের মদদে প্রেসক্লাবের মতবিনিময় সভায় যোগদান করে পরিত্যক্ত একটি রাজনৈতিক দলের এজেন্ডা পরিপূরক বক্তব্য উপস্থাপনের পর উদ্ভ’ত পরিস্থিতির জন্যে দু:খ প্রকাশ এবং মুশফিক ফজল আনসারীর প্রতি নিন্দা জ্ঞাপন করেছেন প্রেসক্লাবের কর্মকর্তারা।
উল্লেখ্য, হাতাহাতি এবং ধাক্কাধাক্কির পর মুশফিক ফজল আনসারী নিজের অবস্থান স্পষ্ট করেন এই বলে যে, যা কিছু নিয়ে ক্ষোভ তৈরী হয়েছে সে সব তার নিজস্ব বক্তব্য। এর সাথে আয়োজক প্রেসক্লাবের কোন সম্পর্ক নেই। বিএনপি-জামাত জোট আমলের অপশাসন আর দু:শাসন নিয়ে একেবারেই নির্লিপ্ত এই সাংবাদিক উল্লেখ করেছেন যে, মানবাধিকার, গণমাধ্যমের স্বাধিকার এবং অপশাসনের বিরুদ্ধে সবসময় সোচ্চার ছিলাম এবং সে আলোকেই সাংবাদিকতা করে যাবো।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৪:২২ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, ২৯ জুলাই ২০২২

nypratidin.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০  

Editor : Naem Nizam

Executive Editor : Lovlu Ansar