বৃহস্পতিবার ২৩শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

৯ বছর বয়সেই গ্র্যাজুয়েশন করলেন যুক্তরাষ্ট্রের ডেভিড বালোগুন!

বিশ্ব ডেস্ক   |   মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ | প্রিন্ট  

৯ বছর বয়সেই গ্র্যাজুয়েশন করলেন যুক্তরাষ্ট্রের ডেভিড বালোগুন!

মাত্র ৯ বছর বয়সেই স্নাতক শেষ হলো ডেভিড বালোগুনের। শুনতে অবিশ্বাস্য হলেও বাস্তবে এমনই ডিগ্রি অর্জন করে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে মার্কিন এই শিশু। সায়েন্স ও কম্পিউটার প্রোগ্রামে স্নাতক হয়েছে সে। আর এই ডিগ্রি অর্জন করে ফিলাডেলফিয়ার সর্বকনিষ্ঠ স্কুল গ্র্যাজুয়েট হিসেবে রেকর্ড করেছে ডেভিড।

পেনসিলভানিয়ার হারিসবার্গের সাইবার চ্যাটার্ড স্কুল থেকেই সায়েন্স এবং কম্পিউটার প্রোগ্রামে হাইস্কুল স্নাতক হয়েছে ফিলাডেলফিয়ার নিকটবর্তী বেনসালেমেরের বাসিন্দা ডেভিড বালোগুন। এই ডিগ্রি অর্জনের সঙ্গে সঙ্গে সর্বকনিষ্ঠ স্কুল-স্নাতকদের তালিকায় নাম তুলে নিয়েছে ডেভিড। বর্তমানে এই তালিকায় তার স্থান দ্বিতীয়। এর আগে সর্বকনিষ্ঠ হাইস্কুল স্নাতক হিসেবে গিনেস বুকে নাম তুলেছিল মাইকেল কিয়ারনি। ১৯৯০ সালে মাত্র ৬ বছর বয়সে হাইস্কুল স্নাতক হয়েছিল মাইকেল। পুলিৎজার পুরস্কারপ্রাপ্ত সাংবাদিক রোনান ফারো ১১ বছর বয়সে স্কুলের পড়াশোনা সম্পন্ন করেছিলেন। ডেভিড ইতোমধ্যে কলেজে যাওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে।

এক টিভি চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ডেভিড বলেন, আমি একজন জ্যোতির্পদার্থবিদ হতে চাই। ব্ল্যাক হোল এবং সুপারনোভা নিয়ে পড়াশোনা করতে চাই।

ছেলের পড়াশোনা ও বুদ্ধিমত্তায় অভিভূত ডেভিডের বাবা-মা। মাত্র ৯ বছর বয়সেই যে ডেভিড অনেক কিছু বুঝতে সক্ষম এবং অনেক সময় ডেভিডের বুদ্ধি তার বোঝার ক্ষমতাকেও পেছনে ফেলে দেয় বলে জানিয়েছেন সর্বকনিষ্ঠ স্নাতকের গর্বিত মা রোনিয়া।

মেনসার আই কিউ সোসাইটির সদস্য ডেভিড। রিচ সেন্টার থেকে স্নাতক হওয়ার পর বাক্স কান্টি কলেজে সেমিস্টার সম্পূর্ণ করেছে। পড়াশোনার পাশাপাশি খেলাধুলাসহ সহপাঠ্যক্রমিক কার্যাবলীতেও দক্ষ হয়ে উঠতে পারবে, এমন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের খোঁজ শুরু করেছেন ডেভিডের বাবা-মা।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১২:৫৩ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

nypratidin.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর...

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  

Editor : Naem Nizam

Executive Editor : Lovlu Ansar